(ট্র্যাফিক জ্যামে আটকে পড়া একটি বাসে………)
মুক্তমনাঃ শালার মানুষ আর মানুষ! মানুষে গিজগিজ করছে। এই হুজুরগুলা যত বদমাইশ! বলে যে মুখ দিবেন যিনি, আহার দিবেন তিনি। এখন বুঝো ঠ্যালা! বেকুব ধর্মান্ধগুলা একটার পর একটা পয়দা করে, আর দেশের যত সমস্যা!
মোল্লাঃ ভাই, আপনি বলতে চাচ্ছেন, জনসংখ্যা বেড়ে গেছে, এর জন্য ইসলাম দায়ী?
মুক্তমনাঃ তা নয়ত কি?
মোল্লাঃ কিন্তু……… আপনার কথা সত্য হলে ত আরবের লোকসংখ্যা পৃথিবীর সবচেয়ে বেশি হওয়ার কথা। কারণ ইসলাম ত প্রথম ঐদেশেই শুরু হয়েছে। অথচ দেখেন, বাংলাদেশের চেয়ে ১০ গুনের বেশি বড় হওয়া সত্ত্বেও, সউদি আরবের লোকসংখ্যা ৩ কোটিও নয়। অন্য আরবদেশগুলোর অবস্থাও তাই!
(ভ্যাবাচ্যাকা খেয়ে গেলেন মুক্তমনা………… PUBLIC এর কান খাড়া!)

Read the rest of this entry »

মূল লেখা – ভাই আসিফ আদনান

 

সেকুলার হিউম্যানিস্ট – ধর্মনিরপেক্ষ মানবতাবাদের ধারক-বাহকরা আমাদের গল্প শোনান যে ধর্ম কতো খারাপ, ধর্মের নামে কতো মানুষ মারা হয়েছে, ইসলাম মানে পশ্চাৎপদতা, ইসলাম মানে বন্দিত্ব, ইত্যাদি ইত্যাদি। মধ্যযুগে ক্যাথলিক চার্চের ইনকুইযিশান আর ইউরোপের অন্ধকারযুগের বোঝা তারা নির্দ্বিধায় ইসলামের উপর চাপিয়ে দেন। তারা আমাদের বুঝ দেন যে ইসলামের পরিবর্তে তাদের প্রচারিত “মানবতা” আমাদের দিক নির্দেশক, পথপ্রদর্শক আদর্শ হওয়া উচিত। তারা বলেন এই “ধর্মনিরপেক্ষ মানবতা” আমাদের আরো শ্রেষ্ঠতর নৈতিকতার শিক্ষা দিতে সক্ষম। Read the rest of this entry »

“বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম”

স্ত্রী হলো শা’ইতানের বিরুদ্ধে দুর্গ! 

সূরা নূরের ৩২নং আয়াতে উল্লেখিত –

“তোমাদের মধ্যে যাদের স্ত্রী নেই,তোমরা তাদের বিয়ের ব্যবস্থা কর, একইভাবে তোমাদের দাস – দাসীদের মধ্যে যারা  ভালো মানুষ তাদেরও (বিয়ের ব্যবস্থা কর) ; তারা যদি অভাবী হয়, (তাহলে) আল্লাহ তা’আলা অচিরেই তার অনুগ্রহ দিয়ে তাদের অভাবমুক্ত করেদিবেন; আল্লাহ তা’আলা প্রাচুর্যময় ও সর্বজ্ঞ।“ – (২৪:৩২)

এই আয়াতের তাফসীর থেকে প্রাপ্ত – Read the rest of this entry »

– ‘’ক্বাদর’’ এরঅর্থ ?

ইবনে হাজার আসকালানী (রহিমাহুল্লাহু) উনার বিখ্যাত ‘ফাতহুল বারী’ (৪/৩২৩-৩২৪) তে বলেন – “‘ক্বাদর’ শব্দটি যখন ক্বাদরের রাত্রির ক্ষেত্রে বিবেচিত হয় তখন এর বেশ কিছুব্যাখ্যা পাওয়া যায়।”

এটা বলা হয়ে থাকে ‘ক্বাদর’ বলতে মর্যাদা বোঝানো হয়।{“তারা আল্লাহকে যথাযথমর্যাদা’(ক্বাদর) দান করতে পারেনি”} {আল-আন’আম; ৯১}।তাই বলা যায়, এই রাত মর্যাদাপূর্ণ হিসেবে নির্দেশিত হয়েছে যেহেতু – এই রাতে কুর’আন নাজিল হয়েছিল,এইরাতে ফেরেশতারা জমিনে নেমে আসেন, এই রাতে আল্লাহ সুবাহানওয়াতালার ক্ষমা ও করুনাবর্ষিত হয় কিংবা এই রাতে যারা সারা রাত জেগে থেকে ইবাদতে ব্যস্ত থাকেন তারা মর্যাদার অধিকারী। Read the rest of this entry »

“By heaven furnished with paths;” (Surat adh-Dhariyat, 7)

The Arabic word alhubuki,” translated as “furnished with paths” in verse 7 of Surat adh-Dhariyat, comes from the verb hubeke,” meaning “to weave closely, to knit, to bind together.” The use of this word in the verse is particularly wise and represents the current state of scientific knowledge in two aspects. Read the rest of this entry »

মূল - সাদমান আবেদীন ! 

ছোটবেলা থেকে আমরা বেড়ে উঠি একটা বস্তুবাদী সমাজে। এই সমাজ আমাদের দুনিয়ার মোহে আচ্ছন্ন করে রাখে,  এই সমাজ শিখায় সফলতা মানেই ভাল রেজাল্ট, ভাল চাকরি, অঢেল টাকা পয়সা। এই মোহে আবিষ্ট হয়ে আমরা ভুলে যাই, মহান আল্লাহ্‌ তাআলা এই দুনিয়ায় আমাদের কেন পাঠিয়েছেন। ভুলে যাই আমাদের সৃষ্টি করার মূল উদ্দেশ্য হল Read the rest of this entry »

হতে পারে আপনি এমন একজন ব্যক্তি ছিলেন যিনি মোটেও ধার্মিক ছিলেন না। পরিবারের অন্যান্যদের ও বন্ধু-বান্ধবদের মতই আপনি আপনার জীবন কোনোরকম পার করে দিচ্ছিলেন।

কিন্তু হঠাৎ একদিন আপনার ভেতরে কিছু একটা অনুভূত হল এবং আপনি সিদ্ধান্ত নিলেন , “ হ্যাঁ । আমি আমার ভেতরকার এই অনুভূতিকে গুরুত্ব দিব। আমি জানি না আল্লাহ সুবহানাল্লাহ তা’আলা এটা কীভাবে ঢুকিয়েছেন আমার ভেতরে। হয়তোবা কোন বন্ধু ,ফেসবুকের নোট কিংবা ইউটিউবে দেখা কোনো ভিডিও দেখে  কিংবা যেভাবেই হোক এমন টা হয়েছে। কিন্তু আমি এই দিক নির্দেশনা সিরিয়াসলি নিচ্ছি , যা ই হোক না কেন। ! ”  Read the rest of this entry »

মহাগ্রন্থ কুর’আনে আল্লাহ সুবহানাল্লাহ তা’ আলা বারবার ‘জাহান্নাম’ এর কথা বলেছেন.. আমরা ধারনা করি জাহান্নাম আমাদের থেকে অনেক অনেক দূরে ।

আমরা ভাবি সেই দুঃসহ বিপদের স্থান অনেক দূরে । মানে পরকালে যা কিনা বর্তমান থেকে বহু দূরে । সেই নিদারুণ যন্ত্রণা এবং অত্যাচার এখনো বহু ক্রোশ Read the rest of this entry »